নিউ ইর্য়ক প্রতিনিধি: নিউ ইয়র্কে আগামী ২২ জুন শুরু হবে ২৭তম বইমেলা। মেলার অতিথিরা আসতে শুরু করেছেন। এরইমধ্যে লেখক আনিসুল হক এবং কালি ও কলম সম্পাদক ও বেঙ্গল প্রকাশনার নির্বাহী আবুল হাসনাত আমেরিকায় পৌঁছেছেন। বাংলাদেশ থেকে ২০টি প্রকাশনা সংস্থা ও অধ্যাপক আবদুল্লাহ সায়ীদ, রামেন্দু মজুমদার, বাংলা একাডেমীর মহাপরিচালক শামসুজ্জামান খান, লেখক আনোয়ারা সৈয়দ হকসহ প্রায় ২০জন কবি-লেখক-সাহিত্যিক নিউ ইয়র্ক বইমেলায় যোগ দিতে আগামি সপ্তাহে নিউ ইয়র্ক পৌঁছাবেন বলে জানিয়েছেন মেলা কমিটির আহ্বায়ক ড. নূরুন নবী।

উল্লেখ্য ২২ জুন শুক্রবার জ্যাকসন হাইটসের বেলাজিনো পার্টি সেন্টারে বইমেলার উদ্বোধনী অনুষ্ঠান এবং ২৩ ও ২৪ জুন অর্থাৎ শনি ও রোববার জ্যাকসন হাইটসের পিএস ৬৯ মিলনায়তনে বইমেলা অনুষ্ঠিত হবে।

ড. নবী আরো জানান, এ বছরের মেলায় বাংলা সাহিত্যে অবদানের জন্য সাহিত্য পুরষ্কারের নতুন নামকরণ হয়েছে ‘মুক্তধারা-জিএফবি পুরষ্কার’। নিউজার্সির বাংলাদেশি ব্যবসায়ি ও সাহিত্যানুরাগী গোলাম ফারুক ভুঁইয়ার অর্থানুকুল্যে প্রতিষ্ঠিত এই পুরষ্কারের মূল্যমান নির্ধারিত হয়েছে পঁচিশ হাজার ডলার।

উল্লেখ্য, ২০১৬ সালে থেকে সাহিত্য পুরস্কার প্রদান করা হয়ে আসলেও নিউ ইয়র্ক বইমেলায় এবারই প্রথমবারের মতো একটি প্রকাশনা পুরস্কার প্রবর্তিত হচ্ছে। বইমেলায় যেসব প্রকাশকবৃন্দ অংশ নেবেন তাঁদের ভেতর থেকেই শ্রেষ্ঠ প্রকাশককে বেছে নেওয়া হয়। চারটি নীতিমালার ভিত্তিতে এই পুরষ্কার নির্ধারিত হবে। প্রদর্শিত গ্রন্থ সমূহের মান, প্রদর্শনী স্টলের মান এবং প্রবাসী লেখকদের প্রতি দৃষ্টিভংগি। মুক্তিযুদ্ধ বিরোধী হিসাবে পরিচিত কোন প্রকাশনা সংস্থা এই পুরষ্কার পাবেন না, বৈঠকে সর্বসম্মতভাবে এই সিদ্ধান্তও গৃহীত হয়।